নীলফামারীতে বাঁধ ভেঙে ঢুকছে পানি, উৎকণ্ঠায় মানুষ

নীলফামারীতে বাঁধ ভেঙে ঢুকছে পানি, উৎকণ্ঠায় মানুষ

নীলফামারী: জেলার সৈয়দপুর শহর রক্ষাবাঁধ ভেঙে গতকাল রোববার হু হু করে বন্যার পানি ঢুকছে উপজেলা শহরে। এ পানিতে শহরের মিস্ত্রিপাড়া, বাঁশবাড়ি, নতুন বাবুপাড়া, কুন্দল, কাজিরহাট ও পাটোয়ারীপাড়া এলাকা কোমর পানিতে তলিয়ে গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন শহরের প্রায় ৩০ হাজার মানুষ।

ক্ষতিগ্রস্ত শহর রক্ষাবাঁধ এলাকা জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, সেনাবাহিনী, পাউবো, উপজেলা ও পৌরসভা কর্তৃপক্ষ পরিদর্শন করেছে। কিন্তু বাঁধের ভেঙে যাওয়া অংশে প্রবল স্রোত থাকায় তা রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। ফলে ওই পানি শহরে ঢুকে বন্যার সৃষ্টি হয়েছে।

সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকার  জানান, রোববার বিকেলে শহরের দিনাজপুর সড়কের হাসপাতাল এলাকায় ও পাটোয়ারীপাড়ার রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে।

সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: মোখছেদুল মোমিন জানান, পৌরসভা ও ৫টি ইউনিয়নের পানিবন্দি মানুষকে ১৬টি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসায় সাময়িক আশ্রয়ের জন্য স্থানান্তর করা হয়েছে। প্রয়োজনের ভিত্তিতে সরকারি ও স্থানীয় উদ্যোগে তাদেরকে শুকনো খাবার দেয়া হচ্ছে।

সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ শওকত চৌধুরী এমপি বন্যা দুর্গত এলাকার মধ্যে চওড়া, খাতামধুপুর, হাজারীহাট, বাঙ্গালীপুর, পাটোয়ারীপাড়া পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি হাজারীহাট স্কুল এন্ড কলেজের মাঠে বন্যা কবলিত মানুষদের মাঝে চাল, ডাল ও শুকনো খাবার বিতরণ করেন।

তিনি জানান, শহর রক্ষাবাঁধটি ধসে যাওয়ার কারণে শহরের পশ্চিম ও দক্ষিণ এলাকাগুলোতে বন্যা দেখা দিয়েছে। তিনি বন্যা কবলিত এলাকায় এবং বন্যা পরবর্তী ত্রাণের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি অবগত করেছেন বলেও জানান।