সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা শুধু জনগণের

সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা শুধু জনগণের

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জনগণের ভোটে নির্বাচিত সার্বভৌম সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা জনগণ ছাড়া আর কারো নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, জনগণ যদি আগামীতে ভুল করে তাহলে এই দেশ জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও ’৭১-এর ঘাতকদের হাতে চলে যাবে। দেশ অন্ধকারের পথে চলে যাবে। তাই জনগণকে ভুল করা যাবে না।

আগামী নির্বাচনে দেশের জনগণ ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আবারও বিজয়ী করবে, এমন আশাবাদ করে তিনি বলেন, এদেশের মানুষ আর ভুল করবে না। কারণ তারা জানে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় এলে এদেশে আবার জঙ্গি উত্থান হবে। ’৭১-এর পরাজিত শক্তি আবারও জাতীয় পতাকাকে কলঙ্কিত করবে। দেশ অন্ধকারের দিকে চলে যাবে। তাই দেশের মানুষ আগামী নির্বাচনে আবারও আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে।

তিনি বলেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত সার্বভৌম সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা কারো নেই। জনগণের ভোটে নির্বাচিত সংসদ সার্বভৌম। এ সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা জনগণ ছাড়া আর কারো থাকতে পারে না।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। এ নির্বাচনে জনগণ যে রায় দেবে তা আমরা মেনে নেব।

মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আব্দুস সবুর, দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

তার আগে রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নং বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোচনা সভায়ও বক্তব্য রাখেন তিনি।  স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য এসএম কামাল হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ, সাংগঠনিক সম্পাদক সভাপতি শেখ সোহেল রানা টিপু, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ সাকিব বাদশা প্রমুখ।