আপনার নিরাপদ স্থানেই পৌঁছে যাবে পুরুষ যৌনকর্মী!

আপনার নিরাপদ স্থানেই পৌঁছে যাবে পুরুষ যৌনকর্মী!

যৌনতা কি এখন শুধুই ছেলেদের জন্যে! না এমন ধারণা থাকলে অবশ্যই বদলে ফেলুন। প্রত্যেকদিন সাহসী হচ্ছে বিশ্ব। যৌনতার ক্ষেত্রে তো অবশ্যই। আর এক্ষেত্রে ছেলেদেরকে হার মানাচ্ছে মহিলারা। বিশেষত বিশ্বের প্রথম দেশগুলিতে তো বটেই। যৌনতার সুখ খুঁজতে মেয়েরাও পুরুষ যৌনকর্মী ভাড়া করে জীবন উপভোগ করছেন। ‘উইমেন হু পে ফর সেক্স’ শিরোনামে বিবিসি ম্যাগাজিনে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এমনটাই বলা হয়েছে।
সাংবাদিক হান্নাহ বারনেসের লেখা ফিচারধর্মী প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রিটেনে এমন অনেক মহিলা আছেন যারা বার কিংবা নাইটক্লাবে গিয়ে পুরুষ সঙ্গী খোঁজা পছন্দ করেন না। যৌনতা উপভোগের জন্য তাঁরা ‘এসকর্ট এজেন্সির’ সাহায্য নেন। এসব এজেন্সির কাছে ফোনে ‘এসকর্ট’ চাইলেই তাঁরা মহিলা গ্রাহকদের কাছে পুরুষ ‘এসকর্ট’ পাঠিয়ে দেয়।men-sex-worker

ইংল্যান্ডের ওয়েস্ট মিডল্যান্ডের একটি বিলাসবহুল এসকর্ট এজেন্সির মালিক নিকোল। মহিলাদের জন্য তিনি একটি বিলাসবহুল এবং বড় আকারের বাংলো তৈরি করে রেখেছেন। যেটি শহর থেকে প্রায় অনেকটাই দূরে! এই বাড়ির ভিতরে কী চলছে সেটা বাইরে থেকে কোনভাবেই বোঝার উপায় নেই।
নিকোল জানাচ্ছেন, ‘মহিলা ক্লায়েন্টরা নিজেদের পরিচয় গোপন রাখতে চান। এটা তাদের নিজস্ব পৃথিবী, এই গোপনীয়তা তাদের জীবনেরই অংশ।’ ছেলে যৌনকর্মীরা জানেন তাঁদের কাছে আসা মহিলারা অবিবাহিত বা একাকী নন। তাদের মধ্যে এমনই একজন পুরুষ যৌনকর্মী জানাচ্ছেন, কিছু মহিলা মনে করেন যৌনতার জন্য অর্থ ব্যয় কোনও প্রতারণা নয়। এটি প্রেম বা এরকম অন্যান্য সম্পর্কের মতোই স্বাভাবিক ব্যাপার।

যেসব মহিলার বয়ফ্রেন্ড বা স্বামী রয়েছে, তাঁদের জন্য বারে কিংবা অন্য কোনও প্রকাশ্য জায়গায় অন্য কোনও পুরুষের সঙ্গ খুবই বিপদজ্জনক। নিকোলের মতে, ‘তাঁদের জন্য এমন জায়গা দরকার যেখানে প্রতিবেশী বা পরিচিত কেউ তাঁদের দেখে ফেলবে না।’ সেজন্যে তাঁর তৈরি বাড়ি ইতিমধ্যে বেশ জনপ্রিয়। অনেক মহিলা আসেন, যারা সুখ খোঁজেন। টাকার বিনিময়ে চলে অবাধ যৌনতা।

পুরুষ যৌনকর্মীরা বিবিসিকে জানাচ্ছেন, মহিলারা নানা কারণেই যৌনতার জন্য অর্থ ব্যয় করতে চান। যৌনতায় আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়া, নতুন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা ইত্যাদি। এছাড়াও কর্পোরেট মহিলারা সময়ের অভাবে তাদের স্বামীর সঙ্গে মিলিত হতে পারেন না। ফলে তারাও এই বাড়িতে আসেন কিংবা ডেকে নেন তাঁর নিরাপদ স্থানে। ইতিমধ্যে ব্রিটেনে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে এই ‘পরিষেবা’। ছেলেরাও আসছেন এই পেশায়। নিকোল জানাচ্ছে, ইংল্যান্ডে বেকারত্ব সমস্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় এখন ঘন্টাপ্রতি ৬০ পাউন্ডে পুরুষ যৌনকর্মী ভাড়া পাওয়া যায়। যা কিনা ভারতীয় মুদ্রায় মাত্র সাড়ে ৫ হাজারের মতো। কিন্তু এরকম যৌনকর্মী পেতে মেয়েদের কী রকম খরচ করতে হয়? গড়পড়তায় ঘন্টায় সর্বনিম্ন ১০০ পাউন্ড খরচ করলেই মিলবে সর্ব-সুখ! ভারতীয় মুদ্রায় যা কিনা দশহাজারের মতো। ছবি-প্রতিকী